বিভাগ: শিক্ষা

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ পাসের হার ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ

44উত্তরণ প্রতিবেদন:  এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০ বোর্ডে গড় পাসের হার ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ। গত বছর এ হার ছিল ৯১ দশমিক ৩৪ শতাংশ। এবার পাসের হার ৪ দশমিক ৩০ শতাংশ কমেছে। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ১১ হাজার ৯০১ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪২ হাজার ২৭৬। এবার জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৩০ হাজার ৩৭৫। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় ৩ হাজার ১১৬টি কেন্দ্রে ২৭ হাজার ৮০৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৪ লাখ ৭৩ হাজার ৫৯৬ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে মোট পাস করে ১২ লাখ ৮২ হাজার ৬১৮ জন। এবার মোট ৩ হাজার ১১৬টি কেন্দ্রে ২৭ হাজার ৮০৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেয়।
এদিকে, এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার সময় বিএনপি-জামাত জোটের হরতাল-অবরোধের কারণে নানা প্রতিবন্ধকতার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পরীক্ষার সময় হরতাল-অবরোধ না থাকলে পাসের হার আরও বাড়ত। গণভবনে গত ৩০ মে সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ফল হস্তান্তরের পরপরই এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, পরীক্ষা চলাকালীন নিজেদের স্বার্থে বিএনপি-জামাত জোট লাগাতার হরতাল-অবরোধ দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারার মতো ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। তাদের হরতাল-অবরোধ জনসমর্থন না থাকলেও আমরা ঝুঁকি না নিয়ে হরতালের ফাঁকেই পরীক্ষা চালিয়ে নিয়েছি। এসব কর্মসূচির কারণে পরীক্ষার্থীদের অনেক কষ্ট হয়েছে, তাদের মনোযোগ বিঘিœত হয়েছে। তারপরও এবার পাসের হার ৮৭.০৪ শতাংশ। তিনি বলেন, এর আগে এসএসসিতে ৯৩ শতাংশ পাস থাকলেও এবার আমাদের প্রত্যাশা ছিল আরেকটু বেশি। হরতাল-অবরোধ না থাকলে আমরা পাসের হার আরও বাড়াতে পারতাম। এত প্রতিবন্ধকতার মধ্যে এই ফলকেই একটা বিরাট অর্জন হিসেবে আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এত প্রতিকূলতার মধ্যেও এই ফলের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন ও আন্তরিক ধন্যবাদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফলের সার-সংক্ষেপ হস্তান্তরের পর শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০ বোর্ডে গড় পাসের হার ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ। মোট জিপিএ পেয়েছে ১ লাখ ১১ হাজার ৯০১ জন। ১৪ লাখ ৭৩ হাজার ৫৯৬ জন পরীক্ষা দিয়ে মোট পাস করেছে ১২ লাখ ৮২ হাজার ৬১৮ শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ২০, কারিগরি বোর্ডে পাসের হার ৮৩ দশমিক ০১। বিদেশের ৮টি কেন্দ্রে পাসের হার ৯৭ দশমিক ৬৬। এবার শতভাগ পাস প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৫ হাজার ৯৭টি। গত ২ ফেব্রুয়ারি এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিএনপি-জামাতের হরতালের কারণে তা শুরু হয় ৬ ফেব্রুয়ারি। হরতালের কারণে শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পরীক্ষাগুলো নেওয়া হয়। পরীক্ষা শেষ হয় ৩ এপ্রিল।

পাঠকের মন্তব্য:

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না। তারকাচিহ্নযুক্ত (*) ঘরগুলো আবশ্যক।

*