বিভাগ: দিনপঞ্জি

দিনপঞ্জি : মার্চ ২০১৯

০২ মার্চ
* সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের দায়িত্ব প্রকৌশলীদের উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজের মান বজায় রেখে এবং পরিবেশ সুরক্ষার প্রতি যতœশীল থেকে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণের জন্য তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমাদের উন্নয়ন পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়নের গুরুভার আপনাদেরই। কাজেই আমি চাইব, আপনারা পরিবেশ এবং কাজের গুণগত মান বজায় রাখার বিষয়টি মাথায় রেখেই যে কোনো পরিকল্পনা গ্রহণ করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিকালে রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আইইবি’র ৫৯তম কনভেনশনের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন।

০৩ মার্চ
* দেশের জন্য যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে সদা প্রস্তুত থাকার জন্য সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘পবিত্র সংবিধান ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা তথা অভ্যন্তরীণ কিংবা বাহ্যিক যে কোনো হুমকি মোকাবিলায় সদা প্রস্তুত থাকতে হবে।’ রাজশাহী সেনানিবাসের শহিদ কর্নেল আনিস প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টের ৭ম, ৮ম, ৯ম এবং ১০ম রেজিমেন্ট ন্যাশনাল স্টান্ডার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এ-কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের সেবা করার জন্য সেনাবাহিনীকে সরকার সব সময় পাশে পেয়েছে। আর সামনে যখনই প্রয়োজন হবে তখনই সেনাবাহিনী জনগণের পাশে দাঁড়াবে।’ তিনি বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনীর সদস্যরা নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে দেশের গণতান্ত্রিক ধারা সমুন্নত রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন।’ সেনা সদস্যদের দেশের মানুষের ভরসা ও বিশ্বাসের মূর্তপ্রতীক উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পেশাদারিত্বের কাক্সিক্ষত মান অর্জনের জন্য দক্ষ, সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে সৎ এবং মঙ্গলময় জীবনের অধিকারী হতে হবে।’

০৫ মার্চ
* নতুন করে আর কোনো মহাসড়কের অনুমোদন দেবে না সরকার। নতুন করে মহাসড়ক নির্মাণের প্রয়োজন নেই জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্টদের এবার রেলপথ-নদীপথের দিকে নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে সারাদেশের নদী রক্ষা করার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। নদী রক্ষার পাশাপাশি ঢাকার বাইরে যে কোনো প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে পুকুর-জলাশয় রক্ষা করে প্রকল্প বাস্তবায়নের নিদের্শনাও দেন সরকারপ্রধান। রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এসব নির্দেশনা দেন। একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। একনেক সভায় মোট ৬ হাজার ২৭৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে সরকার ব্যয় করবে প্রায় ৩ হাজার ৩১৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক ঋণে ২ হাজার ৯৬২ কোটি ৩২ লাখ টাকা ব্যয় হবে। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। এ সময় তিনি বলেন, রেল, সড়ক ও নৌপথের সমন্বিত নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

০৬ মার্চ
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পাটের কোনো কিছুই ফেলনা নয়। ফলে পাটে লোকসান হওয়ার কথা নয়। সরকার পাটে লোকসানের কথা শুনতে চায় না। পাটশিল্পকে লাভজনক করতে হবে। নতুন পণ্যের উদ্ভাবনার মাধ্যমে এই খাতকে লাভজনক করা সম্ভব। সরকার সব সময় এ খাতের উন্নয়নে সহযোগিতা দিচ্ছে। সরকার চায় বেসরকারি উদ্যোক্তারা এ খাতে আরও গুরুত্ব দিক। বেসরকারি খাত যত বেশি গুরুত্ব দেবে, পাটশিল্প ততই বিকশিত হবে। তিনি বলেন, অন্যান্য রপ্তানিমুখী পণ্য যে প্রণোদনা পাচ্ছে, পাটপণ্যের ক্ষেত্রেও সেরূপ প্রণোদনা দেওয়া হবে। পাটপণ্য দিয়ে বিশ্ববাজার দখল করতে হবে। জাতীয় পাট দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাঝে পাটের কিছুটা মন্দ সময় গেলেও এখন নতুন করে সুদিন ফিরে আসছে। সারাবিশ্বের মানুষ আবার পাটের মতো প্রাকৃতিক আঁশের দিকে ঝুঁকছেন। পাশাপাশি পাটের বহুমুখী ব্যবহার বাড়ছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পাট উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে পাটের বহুমুখী ব্যবহার বৃদ্ধির বিষয়ে আমাদের নজর দিতে হবে। এ খাতে গবেষণা বাড়াতে হবে। পাটের রপ্তানি বাড়াতে নতুন নতুন বাজার ধরতে হবে। শেখ হাসিনা বলেন, পরিবেশবান্ধব পাটপণ্যকে বহুমুখী করার বিষয়টিকে সরকার অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়েছে। জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টারের (জেডিপিসি) মাধ্যমে এরই মধ্যে প্রায় ৬৫০ জন বেসরকারি উদ্যোক্তা সৃষ্টি হয়েছে। এসব উদ্যোক্তা প্রায় ২৮০ ধরনের পাটের পণ্য তৈরি, বাজারজাত এবং রপ্তানি করছে।

০৭ মার্চ
* যথাযথ মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হয়েছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। দিনটি পালনের লক্ষ্যে আওয়ামী লীগ সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনসহ দেশব্যাপী সব দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে। সকাল ৭টায় বঙ্গবন্ধু ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। দলটির গবেষণা সংস্থা সিআরআই’র পক্ষে সন্ধ্যায় রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে আয়োজন করা হয় ‘জয় বাংলা’ কনসার্ট। এছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে।

০৯ মার্চ
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমান সরকার নারীর ক্ষমতায়নে সমাজের সর্বস্তরে পুরুষের পাশাপাশি তাদের সমঅধিকার নিশ্চিত করেছে উল্লেখ করে দেশের নারী সমাজকে নিজের ক্ষমতার ওপর নির্ভর করে নিজেদেরই সক্ষমতা অর্জনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যদিও ক্ষমতা দিয়েছি (স্থানীয় সরকারে) তবুও তারা সব জায়গায় ক্ষমতাটি প্রয়োগ করতে পারেন না। যারা দায়িত্বে আছেন (স্থানীয় সরকারে) তাদের নিজেদের ক্ষমতাটা নিজেদের অর্জন করে নিতে হবে। কেউ ক্ষমতা কখনও হাতে তুলে দেয় না, এটা হলো বাস্তবতা। ধর্ষকের প্রতি যেন সবার ঘৃণা জন্মায়, সেজন্য তাদের নাম-পরিচয় ভালোভাবে প্রকাশের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকাল আমরা দেখি প্রায়ই শিশু ধর্ষণ ও নারী ধর্ষণ। এটা অত্যন্ত গর্হিত একটা কাজ। যারা করে তারা সমাজের শত্রু। তাদের প্রতি ঘৃণা। যারা এ ধরনের কাজ করে, তাদের নাম-ধাম-চেহারা ভালোভাবে প্রচার করা এবং নির্যাতিত নারী নয়, যে ধর্ষক তার পরিচয়, তার চেহারা এমনভাবে প্রচার করতে হবে যে সমাজের প্রতি স্তরের মানুষ যেন তাকে ঘৃণার চোখে দেখে। এভাবে তাকে একেবারে সমাজ থেকে বের করে দেওয়া প্রয়োজন। আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

১০ মার্চ
* রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে জ্যেষ্ঠ সংসদ সদস্যরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের নেপথ্যের মাস্টারমাইন্ডদের মুখোশ উন্মোচনে একটি গণতদন্ত কমিশন গঠনের দাবি জানিয়ে বলেছেন, নেপথ্যের নায়কদের বিচার না হলে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকা-ের পরিপূর্ণ বিচার অসম্পূর্ণই থেকে যাবে। জেনারেল জিয়া ও খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর খুনিদের রক্ষা ও পুরস্কৃত করার কারণে তাদেরও বিচার হওয়া উচিত। কারণ এরাও বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের রণ সেøাগান ‘জয় বাংলা’কে সংবিধান সংশোধন করে জাতীয় সেøাগান ঘোষণারও দাবি জানান তারা। প্রথমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং পরে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে রাতে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তারা এসব কথা বলেন।

১১ মার্চ
* প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের সংসদে এসে কথা বলার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নৌকার বিজয় জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত ভোটের রায়। জঙ্গি-সন্ত্রাস-মাদক ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকেই বেছে নিয়েছে দেশের জনগণ। জনগণ আর জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস-মাদক-অগ্নিসন্ত্রাস দেখতে চায় না, নির্বাচনে তাই প্রমাণ হয়েছে। তাই বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত নেতাদের বলব, জনগণের ভোটের প্রতি সম্মান দেখিয়ে সংসদে আসুন, যত কথা বলার আছে বলুন, আমরা কোনো বাধা দেব না। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে রাতে রাষ্ট্রপতি ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব এবং একাদশ জাতীয় সংসদের সমাপনী বক্তব্যে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, জনগণের কাছে যে ওয়াদা দিয়েছি, তা রক্ষা করাই আমাদের কাজ। দুর্নীতি করতে আসিনি, জনগণের সেবা করতে এসেছি। দুর্নীতি অনেক কমিয়ে আনতে পেরেছি। চেষ্টা করে যাচ্ছি দুর্নীতি দূর করে উন্নয়ন করতে। দুর্নীতি যথেষ্ট কমাতে পেরেছি বলেই এত উন্নয়ন-সমৃদ্ধি দৃশ্যমান হয়েছে। মানুষের মধ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে চেতনা সৃষ্টি করছি। কারণ অসৎ উপায়ে বিরিয়ানি খাওয়ার চেয়ে সৎভাবে বসবাস করে নূন খেলেও তৃপ্তি। আলোচনা শেষে ধন্যবাদ প্রস্তাবটি ভোটে দিলে তা সর্বসম্মতক্রমে গৃহীত হয়।

১২ মার্চ
* নির্দিষ্ট দায়-দায়িত্ব শেষ করে সরকারি হাসপাতালে বসে ফি’র বিনিময়ে রোগী দেখার সুযোগ পাবেন সরকারি চিকিৎসকরা। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের হাসপাতালমুখী রাখতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকদের জন্য এ সুযোগ ইতোমধ্যে চালু হয়েছে। এখন এ সুযোগ রাখা হবে দেশের সব সরকারি হাসপাতালে। এ লক্ষ্যে সরকারি হাসপাতালে বিশেষ কর্নারের ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরিকল্পনা কমিশনে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে ৩৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে সরকারি কর্মচারী হাসপাতালকে ৫০০ শয্যায় উন্নীতকরণ প্রকল্প অনুমোদনের সময় তিনি এ নির্দেশনা দেন। বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান একনেকে অনুমোদন পাওয়া প্রকল্প এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো সাংবাদিকদের অবহিত করেন। এদিকে সব সরকারি হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) চালু করারও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ রয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ ব্যবহারে অনেক বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয়। সরকারি হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ চালু করা হলে কম খরচে আইসিইউর সেবা পাবে সাধারণ মানুষ। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী দেশের সর্বাধুনিক চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে উপজেলা ও জেলা হাসপাতালের মানোন্নয়নেরও তাগিদ দিয়েছেন।

১৩ মার্চ
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিভাবক ও শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, প্রাথমিকের কোমলমতি শিশুদের পড়াশোনার জন্য যেন অতিরিক্ত চাপ না দেওয়া হয়। তাহলে তারা ভেতরে একটা আলাদা শক্তি পাবে। এতে তাদের শিক্ষার ভিতটা শক্তভাবে তৈরি হবে। লেখাপড়ার জন্য শিশুদের কঠোর শৃঙ্খলে আবদ্ধ করাকে এক ধরনের ‘মানসিক অত্যাচার’ আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, তারা যেন হাসি-খেলার মধ্য দিয়েই লেখাপড়া করতে পারে। সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৯-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকা-ে শিক্ষার্থীদের বেশি বেশি সম্পৃক্ত করার জন্য সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর অনেক দেশেই সাত বছরের আগে শিশুদের স্কুলে পাঠানো হয় না। আমাদের দেশে অনেক ছোটবেলা থেকেই বাচ্চারা স্কুলে যায়। তবে তারা যেন হেসে-খেলে মজা করতে করতে পড়াশোনা করতে পারে, সে-ব্যবস্থা করা উচিত। সেখানে অনবরত ‘পড়’, ‘পড়’, ‘পড়’ বলাটা বা ধমক দেওয়া বা আরও বেশি চাপ দেওয়া হলে শিক্ষার ওপর তাদের আগ্রহ কমে যাবে, একটা ভীতির সৃষ্টি হবে। শিক্ষার প্রতি যেন ভীতি সৃষ্টি না হয়, সে জন্য শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

১৬ মার্চ
* ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) এবং হল সংসদ নির্বাচনে বিজয়ীরা সব শিক্ষার্থীর জন্য কাজ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সন্ধ্যায় গণভবনে ডাকসু ও হল সংসদে নবনির্বাচিত প্রতিনিধিরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি এমন মনোভাব ব্যক্ত করেন। এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, ছাত্রজীবন থেকেই ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য স্কুল পর্যায়ে কেবিনেট চালু হয়েছে। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ চর্চার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। আগে রাজনীতির পরিবেশ এত সুষ্ঠু ছিল না। এখন সুন্দর পরিবেশ ফিরেছে। নেতৃত্ব তুলে আনতে ডাকসু নির্বাচন আয়োজন করা হয়েছে। নবনির্বাচিত প্রতিনিধিদের শুভেচ্ছা ও সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কে ভোট দিল, কে দিল নাÑ এটা নয়। যে নির্বাচিত হয়েছে, সে সব শিক্ষার্থীর জন্যই কাজ করবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখতে আওয়ামী লীগ সরকার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এক সময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অস্ত্রের ঝনঝনানি ছিল। গুলি-বোমা ছিল প্রতিদিনকার ব্যাপার। এক দলের নেতাকর্মীরা অন্য দলের নেতাকর্মীদের হত্যা করত। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে চিন্তা করল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লেখাপড়ার জায়গা, সেখানে অস্ত্রের প্রতিযোগিতা কেন থাকবে? এটা স্বস্তির বিষয় যে, গত ১০ বছরে ঢাবিতে অস্ত্রের ঝনঝনানি নেই। ২০০৮-১৮ সাল পর্যন্ত বর্তমান সরকারের ১০ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্ত্রের ঝনঝনানি হয়নি বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

১৭ মার্চ
* কৃতজ্ঞ বাঙালি জাতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় স্মরণ করল বাংলাদেশ নামক ভূখ-ের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমানকে। দেশবিরোধী সব ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে সন্ত্রাস-নাশকতা-জঙ্গিবাদ ও ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের দৃপ্ত শপথে বাঙালি জাতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বঙ্গবন্ধুকে। নানা অনুষ্ঠানামালায় এবং বাঙালি জাতির হৃদয় নিংড়ানো শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় দেশব্যাপী পালিত হয় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সারাদেশের গ্রাম-গঞ্জ-শহর-বন্দরে দিনভর বেজেছে বিশ্বের প্রামাণ্য দলিলে স্থান পাওয়া জাতির জনকের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণটি। জাতির পিতার প্রতিকৃতি ও মাজারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন, শিশু সমাবেশ, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, গ্রন্থমেলা, কেক কাটা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ সরকারি-বেসরকারি নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাজনীতির এই কবির জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়। একই সঙ্গে জাতীয় শিশু দিবসও পালিত হলো। ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে এবং টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। দিবসটি উপলক্ষে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণের পাশাপাশি রাজধানীসহ সারাদেশে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শের ওপর আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বইমেলা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুর ওপর তৈরি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান এবং মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনটি প্রতিবারের মতো এবারও দেশব্যাপী শিশু দিবস হিসেবে উদযাপিত হয়েছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছেÑ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙিন।

২৩ মার্চ
* আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান, ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল এমপি আহমেদ বলেছেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থেকে স্বাধীনতার চেতনা ও মূল্যবোধকে ধ্বংস করেছে। স্বাধীনতা-বিরোধীদের রাজনীতিতে পুনর্বাসিত করেছে। খালেদা জিয়াও ক্ষমতায় থেকে। স্বাধীনতা-বিরোধীদের গাড়িতে পতাকা দিয়েছে। দুপুরে ভোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তৃতীয় দিনের মতবিনিময় সভায় সদর উপজেলা ধনিয়া ও চরসামাইয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ এমপি এসব কথা বলেন।
* বিএনপি রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে দাবি করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগের কোথাও তাদের (বিএনপি) ঠাঁই নেই। সবাই সজাগ থাকবেন, বিএনপি-জামাত আমাদের ভেতরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে। এই বিএনপির কোনো ভবিষ্যৎ নেই। যেভাবে জামাত আস্তে আস্তে নিঃশেষ হয়ে গেছে, ঠিক সেভাবেই বিএনপিও দেশের রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। সে-কারণে তারা সুযোগ পেয়ে বিভিন্ন সংগঠনের মধ্যে ঢোকার চেষ্টা করছে। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, এই সমস্ত বিএনপি-জামাতের নেতাকর্মী থেকে সতর্ক থাকতে হবে। এরা এসে আমাদের কাঁধে ভর করে, আমাদের মাঝে এসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে। এদের চিহ্নিত করতে হবে। আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী লীগের কোনো সহযোগী সংগঠনে তাদের কেউ যেন ঠাঁই না পায়, সে-ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

২৫ মার্চ
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘স্বাধীনতার সুফল যেন বাংলার জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে পারি, সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারি এবং আর্থ-সামাজিকভাবে যেন আমরা উন্নত হতে পারি, উন্নত জাতি হিসেবে বিশ্বে যেন একটা মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হতে পারি, সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আর সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। যার সুফল দেশবাসী পেয়েছে।’ বাংলাদেশকে ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস আর দুর্যোগের দেশ হিসেবে বহির্বিশ্বে অবমাননা করার কথা স্মরণ করে এজন্য দেশবাসীর মতো তার নিজেরও মনঃকষ্ট ছিল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সে-কারণেই আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে, চেষ্টা করেছে কত দ্রুত দেশটার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন করা যায় এবং উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বে একটি মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করা যায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৯ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী ’৭১-এর গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘আজ ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস। এরই মধ্যে আমরা কিছু উদ্যোগ নিয়েছি, যেন এই দিনটা গণহত্যা দিবস হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়, সেজন্য আমাদের প্রচেষ্টা চালাতে হবে।’

২৬ মার্চ
* স্বাধীনতার ৪৮তম বার্ষিকীতে লাখো মানুষের জনস্রোতে মিলন মেলায় পরিণত হয়েছিল সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ। লাল-সবুজ পোশাকে জাতীয় পতাকা হাতে সমবেত হয়েছিলেন সব বয়সের এবং নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। স্বাধীনতার জন্য, মুক্তির জন্য জীবন উৎসর্গ করা জাতির সূর্যসন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে পুষ্পস্তবক ও শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা। এবার মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে স্মৃতিসৌধে দলে দলে এসেছেন বিশেষত কিশোর এবং তরুণ বয়সীরা। তাদের কণ্ঠে উচ্চারিত হয়েছে বীর শহিদদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, দুর্নীতি ও জঙ্গিবাদ রুখে দিয়ে মানবিক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়।
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নিতে শিশু-কিশোরদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। শিশু-কিশোরদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে তোমাদের। তোমরাই গড়ে তুলবে আগামী দিনের বাংলাদেশ। ইনশাআল্লাহ, এই বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার শান্তিপূর্ণ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ।’ সরকারপ্রধান বলেন, ‘আজকের শিশুদের মধ্য থেকে কেউ প্রধানমন্ত্রী হবে, বড় বড় চাকরি করবে, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আমরা আমাদের শিশুদের সেভাবে গড়ে তুলতে চাই। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে, দেশকে ভালোবেসে তারা কাজ করবে।’ সকালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে শিশু-কিশোর সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং ঢাকা জেলা প্রশাসন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

২৮ মার্চ
* রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ শিক্ষার মানের সঙ্গে কোনো আপস না করতে এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি ব্যবসা কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার না করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, এখন আমাদের সামনে চ্যালেঞ্জ হচ্ছে শিক্ষার গুণগতমান নিশ্চিত করা। ফলে শিক্ষার গুণগতমানের সঙ্গে কোনো প্রকার আপস করা যাবে না। তিনি রাজধানীর বসুন্ধরায় ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি)-এর ২০তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে এসব কথা বলেন।

২৯ মার্চ
* বিল্ডিং কোড মেনেই বহুতল ভবন নির্মাণ করতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত অগ্নিকা-ের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেছেন, বহুতল ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে বিল্ডিং কোড যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে। অগ্নিদুর্ঘটনাসহ সার্বিক নিরাপত্তা বিষয়ে ভবন মালিক ও ব্যবহারকারীদের যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। এক্ষেত্রে সরকারি সংস্থাগুলোর নজরদারি বাড়াতে হবে। সে-সঙ্গে জনসচেতনতা সৃষ্টির ওপরও বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর বৈঠকে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। বনানীতে এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকা-ের প্রেক্ষাপটে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, সশস্ত্র বাহিনী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বেচ্ছাসেবী শিক্ষার্থীদের সাহসী ও কার্যকর ভূমিকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

৩১ মার্চ
* রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারের আগুন নিয়ন্ত্রণে সরকারি ব্যর্থতা সম্পর্কে বিএনপির অভিযোগকে সম্পূর্ণ মিথ্যাচার দাবি করে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেন, সরকার গত ১০ বছরে ফায়ার সার্ভিসের দ্বিগুণ উন্নতি করেছে। ক্ষেত্র বিশেষে এ উন্নতি তিন গুণ। এই অগ্নিকা-ের পর ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা দক্ষভাবে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করেছেন। গোটা জাতি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে। ২০০৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের উন্নয়নে সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের বিবরণ তুলে ধরে হানিফ বলেন, ফায়ার সার্ভিসের জন্য নতুন অনেক সরঞ্জাম কেনা হয়েছে। এরই মধ্যে ১৯৮টি ফায়ার সার্ভিস প্রকল্প চালু করা হয়েছে।

হ আশরাফ সিদ্দিকী বিটু

পাঠকের মন্তব্য:

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না। তারকাচিহ্নযুক্ত (*) ঘরগুলো আবশ্যক।

*