বিভাগ: অভিমত

প্রতিক্রিয়া

11-6-2018 5-49-24 PMরাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হয়েও ক্যারিয়ারের শুরুতে নিজেকে একটু আড়ালেই রেখেছিলেন নিজেকে। ছিলেন নিজ কর্মক্ষেত্রে শতভাগ ব্যস্ত। হয়েছেন সফলও। অথচ বাবা প্রয়াত জিল্লুর রহমান ছিলেন আওয়ামী লীগের বিপদের সর্বোচ্চ কা-ারি, আজন্ম জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য অনুসারী। মা আইভি রহমান ২১ আগস্ট ‘প্রয়াণযাত্রা’ মিছিলে যোগ দেওয়ার আগেও ছিলেন রাজনীতির অতন্দ্র প্রহরী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছায়াসঙ্গী। তবে বাবা রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ার পর হুট করেই রাজনৈতিক আলোয় চলে আসেন নাজমুল হক পাপন। বাবার ছেড়ে দেওয়া আসনে উপনির্বাচনে হয়ে গেছেন সংসদ সদস্য। ক্রমেই নিজেকে সাজিয়েছেন জনপ্রতিনিধি রূপে। সময় চাকায় চড়ে পেয়েছেন বিসিবির সাংগঠনিক প্রধানের দায়িত্ব। বলতে দ্বিধা নেই, তার অধীনেই বাংলাদেশ ক্রিকেট নতুন উচ্চতা স্পর্শ করেছে। ‘টিম বাংলাদেশ’ হিসেবে সারাবিশ্বে জায়গা করে নিয়েছে। শুধু ক্রিকেট নয়Ñ ক্রীড়াঙ্গনেও তার ভূমিকা এখন অনেক ক্ষেত্রেই অনিবার্য এবং ঈর্ষণীয় অনেকের কাছেই। চলতি মাসের ১৮ তারিখ এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নিচ্ছেনÑ সেই নাজমুল হক পাপনই ২১ আগস্টের ভয়াবহতার কথা মনে করে মনের অজান্তেই কেঁদে ওঠেন। আজও ভুলতে পারেন নি সেই নারকীয় ঘটনার কথা। দীর্ঘ ১৪ বছর পর যখন ওই মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে তখন কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন পাপন।

পাঠকের মন্তব্য:

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না। তারকাচিহ্নযুক্ত (*) ঘরগুলো আবশ্যক।

*