শ্রদ্ধায় ভালোবাসায় রবীন্দ্র-নজরুল জন্মজয়ন্তী

Posted on by 0 comment

60ইকবাল জাফর: ‘আবার ফিরে এল উৎসবের দিন’
২৫ বৈশাখ ছিল এশিয়ার প্রথম নোবেল বিজয়ী ও বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৫তম জন্মজয়ন্তী। ১২৬৮ বঙ্গাব্দের এই দিনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সংগীত¯্রষ্টা, বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক ছোট গল্পকার, ঔপন্যাসিক, নাট্যকর, চিত্রশিল্পী, প্রাবন্ধিক। দেশে ও দেশের বাইরে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ, সংগীত পরিবেশন, নাটক, চিত্র প্রদর্শনীসহ নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই নন্দিত কবির জন্মজয়ন্তীকে পালিত হয়েছে।
কবির ১৫৫তম জন্মবার্ষিকীতে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ২৫ বৈশাখ (৮ মে) সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি বলেন, রবীন্দ্রনাথের চেতনা ধারণ করে সব ধরনের শোষণ-অবিচার-সংঘাত-জঙ্গিবাদ-সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় সকল নাগরিককে আত্মনিয়োগের আহ্বান জানাচ্ছি। রাজধানী ঢাকা ছাড়াও কুষ্টিয়ার শিলাইদহ, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর, নওগাঁর পতিসর এবং খুলনার দক্ষিণডিহি ও পিঠাভোগসহ দেশব্যাপী উদযাপিত হয় কবির জন্মবার্ষিকী।
‘তবু আমারে দেব না ভুলিতে…’
১১ জ্যৈষ্ঠ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৭তম জন্মজয়ন্তী। জন্ম বঙ্গাব্দ ১৩০৬। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সংগীতজ্ঞ, সাংবাদিক, ঔপন্যাসিক, নাট্যকর, প্রাবন্ধিক, গায়ক, অভিনেতা, সৈনিক ও দেশপ্রাণ রাজনীতিবিদ। দেশে ও দেশের বাইরে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ, সংগীত পরিবেশন, নাটক, বইমেলাসহ নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই জননন্দিত কবির জন্মজয়ন্তীকে পালিত হয়েছে।
সাম্যে ও মানবতার বাণী উচ্চারণের মধ্য দিয়ে ১১ জ্যৈষ্ঠ (২৫ মে) জাতীয় পর্যায়ে নজরুলজয়ন্তীর মূল অনুষ্ঠান উদ্যাপিত হয়েছে চট্টগ্রাম নগরীর এমএ আজিজ আউটার স্টেডিয়ামে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বিশেষ অতিথি ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি ইমেরিটাস প্রফেসর রফিকুল ইসলাম ও জাতীয় কবির পৌত্রী খিলখিল কাজী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি সচিব আকতারী মমতাজ।
সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, চট্টগ্রামের নদী, পাহাড় ও প্রাকৃতিক পরিবেশ কবির লেখনীতে ফুটে উঠেছে। অনুষ্ঠানে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি ‘নজরুল স্মৃতিকেন্দ্র’ নির্মাণের ঘোষণা দেন। ২৫ মে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদ কমপ্লেক্সের পাশে নজরুলের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, কবির নাতনি মিষ্টি কাজী ও কবি পরিবারের সদস্যরা। এরপর একে একে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সর্বস্তরের মানুষ। এ সময় ফুলে ফুলে ভরে ওঠে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সমাধিস্থল।

Category:

Leave a Reply