আনন্দ উচ্ছ্বাসে বর্ষবরণ

Posted on by 0 comment

17উত্তরণ ডেস্ক: গত ১৪ এপ্রিল সকালে পহেলা বৈশাখে সর্বস্তরের মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে। লাখো মানুষের বর্ণিল, উচ্ছল পদচারণায় রাজধানী  জনসমুদ্রে পরিণত হয়। চির নতুনের ডাক দিয়ে আসা পহেলা বৈশাখের বৈচিত্র্যের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে নারী-পুরুষের রঙিন সাজে, শিশুদের মুখে ফুটে ওঠা আনন্দের হাসি আর বর্ণিল পোশাকে।
ছায়ানটের বর্ষবরণ : প্রতিবারের মতো এবারও রমনার বটমূলে ছায়ানটের অনুষ্ঠান দিয়ে শুরু হয় বর্ষবরণের মূল আয়োজন। বটমূলে ছায়ানটের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এবার তিন পর্বে বিভক্ত ছিল অনুষ্ঠান। এবারে এ আয়োজনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল ‘আনন্দ, আত্মপরিচয়ের সন্ধান ও মানবতা’। চারুকলার মঙ্গল শোভাযাত্রা : নববর্ষে মঙ্গলবার্তা নিয়ে সকাল ৯টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ থেকে বের হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। ঐক্য ও অসাম্প্রদায়িকতার আহ্বানে এবং ‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্য সুন্দর’Ñ এ প্রতিপাদ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গল শোভাযাত্রায় লোকজ মোটিফের হরেক রঙের মুখোশ, হাতি, বাঘ, ফুল, পাখির প্রতিকৃতি স্থান পায়। সবার সামনে ছিল সমৃদ্ধির প্রতীক কালো হাতি। আরও ছিল সূর্য। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের নেতৃত্বে চারুকলা অনুষদ থেকে বের হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। এতে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও চারুকলার ডিন মো. নিসার হোসেনসহ শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
মঙ্গল শোভাযাত্রাটি চারুকলা থেকে বের হয়ে হোটেল রূপসী বাংলা মোড় ও টিএসসি হয়ে আবার চারুকলায় গিয়ে শেষ হয়।

Category:

Leave a Reply