খাদ্যে পুষ্টিগুণ এখন বড় চ্যালেঞ্জ

2-6-2019 8-45-34 PMরাজিয়া সুলতানা: খাদ্য মানুষের একটি মৌলিক চাহিদা। তবে খাদ্য হলেই হবে না, তা হবে নিরাপদ ও পুষ্টিমানসম্পন্ন। আজকাল এই খাদ্যের গুণগত মান ও পুষ্টিমূল্য অক্ষুণœ রেখে মানুষের প্লেটে পৌঁছানো একটি বড় চ্যালেঞ্জ সরকারের জন্য।
বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বর্তমানে দেশে খাদ্যশস্য উৎপাদিত হচ্ছে ৪ কোটি মেট্রিক টনেরও বেশি। বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বে সবজি উৎপাদনে তৃতীয় এবং চাল, মাছ উৎপাদনে চতুর্থ অবস্থানে আছে।
দেশে খাদ্য পর্যাপ্ততা থাকা সত্ত্বেও অপুষ্টিজনিত রোগের আধিক্য অনেক বেশি। দেশে অপুষ্টিতে ভুগছে আড়াই কোটি মানুষ। মাত্রাতিরিক্ত অপুষ্টিজনিত খর্বতা ৩৬.১ শতাংশ; কম ওজন ৩২.৪ শতাংশ; রক্তশূন্যতায় ভুগছেন ৪৪ শতাংশ নারী।
যে কোনো দেশের জনগণের পুষ্টি অবস্থানির্ভর করেÑ দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা, খাদ্য উৎপাদন ও বিতরণ ব্যবস্থা, খাদ্যাভ্যাস ইত্যাদির ওপর।
খাদ্যের পুষ্টিমূল্য সঠিকভাবে বজায় রাখার জন্য চাষ জমি থেকে শুরু করে খাবার প্লেটে যাবার আগ পর্যন্ত প্রত্যেকটি ধাপ গুরুত্ব ও দক্ষতার সাথে পার করতে হবে।
খাদ্যের পুষ্টিমান অনেকভাবে নষ্ট হতে পারে, যেমনÑ
ষ    মাটি : যে মাটিতে যে ফসল ভালো হয় সেই মাটিতে সেই ফসল চাষ না করলে উৎপাদিত খাদ্যের পুষ্টিমান কমে যায়।
ষ    বীজ : ভালো মানের বীজ ব্যবহার করতে হবে পুষ্টিমানসম্পন্ন ফসল উৎপাদনের জন্য।
ষ    পরিচর্যা : ফসলের পরিচর্যা সঠিকভাবে করতে হবে। ফসলের জন্য উপযুক্ত সূর্যের আলো, বাতাস, পর্যাপ্ত পানি, পরিমিত কীটনাশক, প্রাকৃতিক সার প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে।
ষ    কৃষকের দক্ষতা : অদক্ষ কৃষকের দ্বারা ফসলের পুষ্টিমান নষ্ট হতে পারে।
ষ    ফসল সংগ্রহ : পরিপক্ব ও পূর্ণাঙ্গ বয়স হলে সঠিক পদ্ধতিতে দক্ষ হতে ফসল সংগ্রহ করতে হবে। অপরিপক্ব ফসলে সঠিক পুষ্টিগুণ পাওয়া যায় না।
ষ    রাসায়নিক পদার্থ : রাসায়নিক সার বা কীটনাশক ব্যবহারে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। অতিরিক্ত রাসায়নিক পদার্থ খাদ্যের গুণাগুণ নষ্ট করে।
ষ    চধপশধমরহম : সংগৃহীত ফসল সঠিকভাবে প্যাকেটজাত করতে হবে, অন্যথায় পুষ্টিমান নষ্ট হতে পারে।
ষ    ঞৎধহংঢ়ড়ৎঃ : ফসল পরিবহনে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
ষ    ঝঃড়ৎধমব : ফসল সঠিকভাবে গুদামজাতকরণ জরুরি, অন্যথায় খাদ্যের গুণগতমানের অপচয় হয়।
ষ    রক্ষণাবেক্ষণ : সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ না হলে পুষ্টিমান নষ্ট হয়।
ষ    রান্না করা : সঠিকভাবে কাটা, ধোয়া, রান্না করার ওপর পুষ্টিমান অনেকাংশ নির্ভর করে।

একটা সময় দেশে দুর্ভিক্ষ, ক্ষুধা-মন্দা, দারিদ্র্যের প্রাদুর্ভাব ছিল অনেক। এখন দেশের খাদ্য খাতের ব্যাপক সাফল্যের ফলে দেশের খাদ্য ঘাটতি কমে গেছে। তবে বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে খাদ্যের পুষ্টিমানের নিশ্চয়তা। অতিরিক্ত সার, রাসায়নিক উপাদানের ব্যবহার ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধি করলেও খাদ্যমূল্য কমিয়ে ফেলছে, যা দেশের জন্য বড় হুমকি।
লেখক : পিএইচডি গবেষক, উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিদ্যা
শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

Category:

Leave a Reply