দিনপঞ্জি : আগস্ট ২০১৮

utta১ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন উল্লেখ করে বলেছেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের সঙ্গে জিয়াউর রহমান সম্পূর্ণভাবে জড়িত ছিলেন বলেই তিনি আত্মস্বীকৃত খুনিদের পুরস্কৃত করেছেন। তবে জিয়াউর রহমানের যে পরিণতি হয়েছিল তা অবধারিত। কিন্তু আমার দুঃখ একটাই, তার (জিয়াউর রহমান) বিচারটা আমি করতে পারলাম না। তার আগেই সে মারা গেল। বিকেলে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধুর বাসভবন স্মৃতি জাদুঘর সংলগ্নে শোকাবহ ১৫ আগস্টের মাসব্যাপী কর্মসূচির সূচনা দিনে বাংলাদেশ কৃষক লীগ আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ-কথা বলেন।

৮ আগস্ট
* রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সব ধর্মের মানুষের মধ্যে অসাম্প্রদায়িক চেতনা ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এমপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের একটি প্রতিনিধি দল বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ-কথা বলেন।
* আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, দেশে এ মুহূর্তে নানা অশুভ খেলা চলছে। ওয়ান-ইলেভেনের কুশীলবদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বিএনপি। তাদের এ ধরনের হীন ষড়যন্ত্র কখনও সফল হবে না। ঢাকার আজিমপুরের সলিমুল্লাহ এতিমখানা মাঠে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির উদ্যোগে দুস্থ, এতিম ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি আরও বলেন, দেশে এ মুহূর্তে আন্দোলন হওয়ার মতো বস্তুগত পরিস্থিতি নেই।

৯ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার দেশে গণতন্ত্র সুসংহত এবং উন্নয়ন কর্মকা- ত্বরান্বিত করতে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে। কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড কিউসি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার তেজগাঁও কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ-কথা বলেন। এ-সময় কমনওয়েলথ মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া সমুন্নত রাখার ব্যাপারে তার সংস্থা সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। শেখ হাসিনা বলেন, দেশে বিগত সাড়ে ৯ বছরে উপনির্বাচনসহ স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে প্রায় ৬ হাজারেরও বেশি নির্বাচন হয়েছে। এসব নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

১১ আগস্ট
* আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বিএনপির উদ্দেশ্যে বলেছেন, রাতের অন্ধকারে কিংবা দিনের বেলায় কোথায়, কারা, কার সঙ্গে গোপন বৈঠক করে সবই আমরা জানি। সময়মতো ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দুপুরে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরের সামনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি আরও বলেন, টেমস নদীর পাড়ে কখন কার সঙ্গে বৈঠক হচ্ছে; ব্যাংকক, দুবাইয়ে বসে কারা কোন গডফাদারের সঙ্গে বৈঠক করছেনÑ সেগুলোও আমাদের নলেজে আসে। ধৈর্য ধরে আছি, মনিটর করছি।

১২ আগস্ট
* আগামী সাধারণ নির্বাচন দেশের সংবিধান মোতাবেক অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি বলেছেন, জাতীয় সংসদে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের নিয়েই নির্বাচনকালীন সরকার গঠিত হবে। সেখানে বিএনপির থাকার কোনো সুযোগ নেই। কারণ, বর্তমান সংসদে বিএনপির কোনো প্রতিনিধিত্ব নেই। সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চীনের রাষ্ট্রদূত ঝ্যাং জু-এর সাথে মতবিনিময় করে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
* জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাকে গোপনে টাকা দিয়েছে যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের ভাই মামুন। জয় তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ-কথা বলেন। সজীব ওয়াজেদ জয় তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘কিছু তথ্য আমার কাছে এসেছে যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। নিন্দিত সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা সম্প্রতি নিউইয়র্ক এসেছিলেন। সেখানে তিনি গোপনে যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের ভাই মামুনের সাথে দেখা করেন। আমরা জানতে পেরেছি মামুনের কাছ থেকে তিনি বড় অঙ্কের টাকা পেয়েছেন। টাকাটা তাকে দেওয়া হয়েছে আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলার জন্য। তাদের এই আলাপ দেখেছে ও শুনেছে এরকম সাক্ষীও আছে।’ বিডিনিউজের মতামতের একটি প্রবন্ধ স্ট্যাটাসে সংযুক্ত করা হয়।

১৪ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বজন হারানোর বেদনা নিয়ে আমাকে চলতে হয়। আমি জানি, আমার চলার পথ কখনোই খুব সহজ নয়। বারবার মৃত্যুর হুমকির মুখোমুখি হতে হয়েছে। কিন্তু পিছিয়ে যাইনি। পিছিয়ে যাওয়ার চেষ্টাও করিনি। দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যা যা করণীয় সেটাই করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। বিকেলে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ‘সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্প : জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা সড়ক (এন-৪) চার-লেন মহাসড়কে উন্নীতকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ২৩টি সেতু ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী জেলায় ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ-কথা বলেন।

১৫ আগস্ট
* শোককে শক্তিতে পরিণত করে দেশকে এগিয়ে নেওয়া, মাদক-সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদসহ দেশবিরোধী সব ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে ক্ষুধা-দারিদ্র্য-নিরক্ষরমুক্ত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ের মধ্যদিয়ে সম্পূর্ণ রাষ্ট্রীয়ভাবে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয় স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস।
১৭ আগস্ট
* আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, গোপন বৈঠক চলছে, দেশে-বিদেশে ব্যাংককে বসে বৈঠক চলছে। গত সাত দিনে কারা ঘনঘন যাতায়াত করেছে, সেই খবর আমরা জানি। ব্যাংককে এখন ঘাঁটি করেছে। কারা কারা যাচ্ছেন, কি কি কথা হচ্ছে মনে করেছেন আমরা জানি না। আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, ঢাকা অচল হবে না। বাংলাদেশ অচল করা যাবে না; বরং বিএনপি অচল হয়ে যাবে। বিএনপি অচল হওয়ার সব উপাদান তারা যুক্ত করে ফেলেছে। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ-কথা বলেন।

১৯ আগস্ট
* বস্তিবাসীর স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে জীবনযাপন নিশ্চিত করতে সরকারের পরিকল্পনা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রাজধানীতে আর কোনো বস্তি থাকবে না। বস্তিগুলোকে বহুতল ভবনে পরিণত করা হবে। ২০-তলা করে ভবন গড়ে তোলা হবে। এখন বস্তিবাসী ভাড়া দিয়ে থাকে, তেমনি তারা ওইসব ভবনে দৈনিক, সাপ্তাহিক বা মাসিক ভিত্তিতে ভাড়া দিয়ে থাকবে। রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে দাসেরকান্দি পয়ঃশোধনাগার প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
* একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় দায়ের হওয়া দুই মামলায় বিচারিক আদালতের রায় চলতি সেপ্টেম্বরে পাওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন তথ্য জানান। মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা, জেলহত্যা, যুদ্ধাপরাধীÑ সবার বিচার হয়েছে। একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচারও হবে। এমনকি বিএনপি চাইলে জিয়াউর রহমানের হত্যার বিচারও করা হবে।

২১ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার ঘটনায় আবারও তৎকালীন বিএনপি-জামাত জোট সরকারকে অভিযুক্ত করে বলেছেন, এ হত্যাযজ্ঞে খালেদা জিয়া এবং তার ছেলে তারেক রহমান সরাসরি জড়িত, এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। আওয়ামী লীগকে গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে নিশ্চিহ্ন করাই ছিল তাদের পূর্বপরিকল্পনা। এরা (বিএনপি-জামাত) শুধু রক্ত নিতেই জানে। এদের উত্থানই হচ্ছে হত্যা, ক্যু, ষড়যন্ত্রের রাজনীতির মধ্যদিয়ে। এদের চরিত্র কখনও বদলাবে না। তারা কেবল সন্ত্রাস, দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, মানি লন্ডারিং, এতিমের অর্থ আত্মসাৎই করতে জানে, নিজেরা কেবল ভোগ করতে জানে। মানুষকে দিতে জানে না। কাজেই তাদের সম্পর্কে দেশবাসীকে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

২২ আগস্ট
* রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ঈদুল আজহা উপলক্ষে বঙ্গভবনে সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। তিনি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলতে কোরবানির ত্যাগের মহিমা থেকে শিক্ষা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বঙ্গভবনে সকালে জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ, উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তা, বিদেশি কূটনীতিক, ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব, শিক্ষাবিদ, সম্পাদক, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক, ব্যবসায়িক প্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের মানুষকে অভ্যর্থনা জানান রাষ্ট্রপতি। বঙ্গভবনের দরবার হলে তিনি কুশল ও মতবিনিময় করেন।
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শোকের ব্যথা বুকে নিয়েও দেশের সমৃদ্ধি আর মানুষের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। দেশের মানুষকে ভালো রাখাই আমার একমাত্র লক্ষ্য। জনগণ যেন শান্তি এবং উন্নত জীবন লাভ করতে পারে সেটাই আমার কামনা। গত সাড়ে ৯ বছরে আওয়ামী লীগ সরকার দেশের যে উন্নয়ন করেছে, তার খবর মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে নেতা-কর্মীদের যার যার এলাকায় যাওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। পবিত্র ঈদুল আজহার দিন সকালে গণভবনে সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়কালে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, জনগণ যদি ভোট দেয় তাহলে আমরা ক্ষমতায় যাব। তারা খুশি হলে ভোট দেবে, না দিলে নাই। কোনো অসুবিধা নেই। তবে উন্নয়ন কর্মকা-ে জনগণ সন্তুষ্ট হয়ে আগামী জাতীয় নির্বাচনে ভোট দিলে, আবারও নৌকা ক্ষমতায় আসবে।

২৮ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার জন্য পুনরায় বিএনপি-জামাত জোট সরকারকে অভিযুক্ত করে বলেছেন, তাদের মদদ ছাড়া এ ধরনের জঘন্য হামলা সংঘটিত হতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, তখন ক্ষমতাসীন ছিল বিএনপি-জামাত জোটের পৃষ্ঠপোষকতাতেই এই হামলা হয়েছিল। তাদের পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া এ ধরনের হামলার ঘটনা ঘটতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিকেলে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে এ-কথা উল্লেখ করে বলেন, যুদ্ধের ময়দানে ব্যবহৃত আর্জেজ গ্রেনেড সেখানে ব্যবহার হয়েছিল। কারণ আওয়ামী লীগকে একবারে নিশ্চিহ্ন করে দেয়াই এই হামলার উদ্দেশ্য ছিল। তিনি বলেন, ২১ আগস্ট সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সভা করতে গিয়ে সেখানে গ্রেনেড হামলার শিকার হয়ে নিহত হয়েছিল আমাদের আওয়ামী লীগের আইভি রহমানসহ ২২ জন নেতাকর্মী এবং দুজন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি। আহত হয়েছিল শত শত নেতাকর্মী। তিনি বলেন, ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর আমরা সে অবস্থা থেকে দেশকে এমন একটা পর্যায়ে নিয়ে এসেছি যেখানে সকল ধর্মের মানুষ শান্তিতে তাদের ধর্মকর্ম করতে পারছে। দেশে প্রতিবছর ক্রমবর্ধমান পূজাম-পের সংখ্যার উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা এমন একটা অবস্থায় দেশকে আনতে পেরেছি যেখানে প্রতিটি উৎসবই আনন্দমুখর পরিবেশে উদযাপিত হচ্ছে। কারণ আমাদেরও সেøাগান ‘ধর্ম যার যার উৎসব সবার’। তিনি দেশবাসীকে সতর্ক করে বলেন, এদেশে আর কেউ যেন কোনোদিন সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াতে না পারে সেজন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। তার সরকার ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের সম-অধিকারে বিশ্বাসী উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা হিন্দু ধর্মাবলম্বীরাও নিজেদের অধিকার নিয়ে চলবেন, কারণ এই দেশটা আপনাদেরও। সরকারপ্রধান হিসেবে সকলের সম-অধিকার নিশ্চিত করা তার কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে বলে প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, স্বাধীনতারও মূল লক্ষ্য ছিল সকল ধর্মের মানুষ এদেশে তার সমান অধিকার নিয়ে বাঁচবে। এ জন্যই জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সকলে রক্ত দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এদেশের স্বাধীনতা এনেছিল।

২৯ আগস্ট
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার দল জনগণের কল্যাণের জন্যই রাজনীতি করে, তাদের ভোটের জন্য নয়। ক্ষমতা কোনো ভোগের বস্তু নয়, এটা হলো দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজনীতি করি জনগণের জন্য। রাজনীতি মানুষের কল্যাণের জন্য। ভোট দেওয়া না দেওয়া এটা জনগণের অধিকার। কিন্তু জনসেবা করব, জনগণকে একটু সুখ-শান্তি দেব, তাদের রোগে চিকিৎসা দেব, তাদের একটু উন্নত জীবন দেব, তাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করবÑ এটা তো রাজনৈতিক নেতা হিসেবে আমাদের অঙ্গীকার। প্রধানমন্ত্রী সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে গোপালগঞ্জে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এবং গোপালগঞ্জের পার্শ্ববর্তী আট জেলার ২০ উপজেলায় কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন।

৩০ আগস্ট
* আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম প্রচলনের দাবি আমাদের দলের। অনেক চিন্তা-ভাবনা করে প্রমাণসহ আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশনের কাছে এ দাবি করেছিল। এতে দ্রুত গণনা হয়, স্বচ্ছ ভোট হয়, ফলাফল দ্রুত দেওয়া যায়। তাই আওয়ামী লীগ ইভিএম চায়। সিলেটে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সভায় তিনি এ বক্তব্য রাখেন।

৩১ আগস্ট
* জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের পথ ধরে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ছাত্রলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্মরণে আয়োজিত ওই সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, নিজেদের আদর্শিক নেতা হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আদর্শ নিয়ে নিজেকে গড়ে তুললেই ইতিহাসে তোমরা মূল্যায়ন পাবে, স্থান পাবে। কিন্তু ধন-সম্পদের দিকে গা ভাসালে হারিয়ে যাবে। ছাত্রলীগের অনেক নেতাই আদর্শচ্যুত হয়ে হারিয়ে গেছে। অনেকেই আওয়ামী লীগ ছেড়ে বিএনপিসহ নানা দলে চলে গেছে। ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমার তো বয়স হয়ে গেছে। তোমরাই হবে ভবিষ্যৎ। তোমরা নেতৃত্ব দেবে। তোমাদেরই আদর্শের পতাকা সমুন্নত রেখে প্রগতির পথে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। শিক্ষার আলো জ্বেলে প্রগতির পথ ধরে শান্তির মশাল নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে একটি উন্নত-সমৃদ্ধ-শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার যে লক্ষ্য আমরা নির্ধারণ করেছি সেই লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে হবে। আমার যতটুকু করার তা করে যাব, তারপর তো তোমাদেরই দায়িত্ব নিতে হবে।
গ্রন্থনা : আশরাফ সিদ্দিকী বিটু

Category:

Leave a Reply