দিনপঞ্জি : জানুয়ারি ২০১৯

2-6-2019 8-51-19 PM০১ জানুয়ারি
* বছরের প্রথম দিন সব শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেওয়া হলো নতুন বই। ভোট উৎসবের পরপরই বই উৎসবে মেতে উঠল পুরোদেশ। এবার ৪ কোটি ২৬ লাখ ১৯ হাজার ৮৬৫ শিক্ষার্থীর মাঝে ৩৫ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮২ কপি বিনামূল্যের বই বিতরণ করা হয়। ২০১০ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত মোট ২৯৬ কোটি ৭ লাখ ৮৯ হাজার ১৭২টি বই বিতরণ করা হয়েছে। এবারও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য ৫টি ভাষায় বই বিতরণ করা হচ্ছে আর দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য বিতরণ করা হচ্ছে ব্রেইল বই।

০২ জানুয়ারি
* একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ বিজয়ের জন্য দেশবাসীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে দেশ ও জনগণের কল্যাণে আমৃত্যু কাজ করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, নির্বাচনের পরে দেশ ও জনগণের প্রতি আমার দায়িত্বটা আরও বেড়ে গেছে। বিকেলে গণভবনে শুভেচ্ছা জানাতে আসা বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তিদের সঙ্গে সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের সেবা করাটা একটি বড় কাজ এবং আমি যত দিন বেঁচে থাকব এটা অব্যাহত রাখব। এ সময় তিনি জনগণের আশা-আকাক্সক্ষা পূরণে কাজ করে যাওয়ারও অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।

০৩ জানুয়ারি
* চতুর্থবার এবং টানা তৃতীয়বারের মতো সংসদ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুপুরে জাতীয় সংসদ ভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তিনি আবারও সংসদ নেতা নির্বাচিত হন। সংসদ নেতা নির্বাচিত হয়ে তিনি ক্ষমতাকে অর্থ অর্জনের হাতিয়ার হিসেবে এবং ব্যক্তিস্বার্থে ব্যবহার না করার জন্য দলীয় সংসদ সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন।

০৯ জানুয়ারি
* মেধাবী তরুণদের জন্য আরও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির জন্য সরকারের পাশাপাশি ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেছেন, প্রতিবছর হাজার হাজার মেধাবী তরুণ-তরুণী সাফল্যের সঙ্গে উচ্চশিক্ষা শেষ করে। তাদের জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি খুব জরুরি। বিকেলে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন। পরে রাষ্ট্রপতি মাসব্যাপী ‘ডিআইটিএফ-২০১৯’ উদ্বোধন করেন।

১০ জানুয়ারি
* বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয় পুনর্ব্যক্ত করেছেন তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সদ্যঃসমাপ্ত জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবির প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, আন্দোলনে যারা ব্যর্থ, তারা কখনও নির্বাচনে জয়ী হতে পারে না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বিএনপি নিজেদের কারণেই নির্বাচনে হেরেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন বাণিজ্য এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে রীতিমতো তা অকশনে পরিণত হয়। সকাল-বিকাল প্রতিটি আসনে কয়েকজনকে প্রার্থী ঘোষণা দেয় তারা। যখন যে বেশি টাকা দিয়েছে তাকেই মনোনয়ন দিয়েছে। একটা দল যখন সিট অকশনে দেয় সেখানে আর কী হবে? জয়ের আশা করে কীভাবে? প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা (বিএনপি) জামায়াত ইসলামীকে মনোনয়ন দিয়েছে, স্বাধীনতা-বিরোধীদের দলকে। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী। তারা তাদের ভোট দেয়নি। এ পরাজয়ের কারণ তাদেরই (বিএনপি) খুঁজে বের করতে হবে।

১২ জানুয়ারি
* আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের স্বার্থে সংসদে এসে জনগণের কথা বলতে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, নিজেদের দোষেই তারা সদ্য অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হেরেছে। কারণ, একটি রাজনৈতিক দলের যদি নেতৃত্ব না থাকে, মাথাই না থাকে, তাহলে সেই রাজনৈতিক দল কীভাবে নির্বাচনে জেতার কথা চিন্তা করতে পারে? তারপরও যে কয়টা সিটে তারা জিতেছে, গণতন্ত্রের স্বার্থে তাদের পার্লামেন্টে আসা প্রয়োজন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের উপদেষ্টা পরিষদ এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের যৌথসভায় সূচনা বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

১৫ জানুয়ারি
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তার সরকারের দৃঢ় অবস্থানের পুনরুল্লেখ করে বলেছেন, বাংলাদেশ সন্ত্রাস এবং জঙ্গিবাদের বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। শহরের নাগরিক সুবিধা দিয়ে দেশের প্রতিটি গ্রাম গড়ে তোলার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি। সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার কার্যালয়ে সফররত জাপানের অর্থনৈতিক পুনর্জাগরণ বিষয়ক মন্ত্রী তোশিমিতসু মোটেগি সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন।

১৬ জানুয়ারি
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুসলিম বিশ্বের ঐক্যের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, এই উম্মাহ’র ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিত। মুসলিম বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে সৃষ্ট সংঘাতে ওই দেশগুলোর জনগণকেই ভোগান্তির শিকার হতে হয়। এজন্য মুসলিম উম্মাহর মধ্যে কোনো সমস্যা দেখা দিলে তা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানের আহ্বান জানান তিনি। বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ রেজা নাওফর সকালে প্রধানমন্ত্রীর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে গেলে তিনি এই অভিমত ব্যক্ত করেন।

১৭ জানুয়ারি
* সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হওয়ার লক্ষ্যে ১০ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে হবে। এ জন্য সুশাসন প্রতিষ্ঠা এবং দুর্নীতির মূলোৎপাটন করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যাতে দুর্নীতি না করে, সে জন্য সরকার তাদের বেতন-ভাতা, সুযোগ-সুবিধা ব্যাপকভাবে বাড়িয়ে দিয়েছে। তাদের প্রয়োজন সরকার মিটিয়েছে। তাহলে দুর্নীতি কেন হবে? এখন মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে। প্রশাসনকে জনবান্ধব ও গতিশীল করতে হবে। দুর্নীতি হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে হবে। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত এবং উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য সুশাসন প্রতিষ্ঠাই সরকারের লক্ষ্য। টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রথম বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।
* বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতামূলক সম্পর্ক অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশে সংস্থাটির ডেলিগেশন প্রধান ও দূত রেন্সজে তেরিঙ্ক নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের সঙ্গে এক বৈঠকে এই বার্তা দিয়েছেন।

২০ জানুয়ারি
* মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অপরাধীরা কেন অপরাধে সম্পৃক্ত হয়, সেটা খুঁজে বের করতে হবে। তবে শুধু অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলেই যে তারা ভালো হয়ে যাবে, তা নয়। বরং তাদের সমাজের সুস্থ জীবনে ফিরিয়ে আনতে পারাটাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও দপ্তর পরিদর্শনের অংশ হিসেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গিয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।
২১ জানুয়ারি
* প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের আশা-আকাক্সক্ষা পূরণে নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে কাজ করার জন্য মন্ত্রিসভা সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, কাজের ক্ষেত্রে কোনো ধরনের অন্যায় সহ্য করা হবে না। দায়িত্ব পালনের বেলায় অনিয়ম ও অরাজকতা মেনে নেওয়া হবে না। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। মনে রাখতে হবে, কেউই তদারকির বাইরে নন। প্রধানমন্ত্রী টানা তিনবার সরকার গঠনের পর এদিন তার কার্যালয়ে বর্তমান মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকের প্রারম্ভিক ভাষণে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের উদ্দেশে আরও বলেছেন, যে কোনো মূল্যে সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো আপস নেই।

২২ জানুয়ারি
* প্রতিটি শিল্পনগরীতে বর্জ্য শোধনাগার (ইটিপি) স্থাপন করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইটিপি ছাড়া শিল্পনগরী স্থাপনের কোনো প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হবে না বলে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এমনটি জানান প্রধানমন্ত্রী। সভায় যাত্রাবাড়ী-ডেমরা মহাসড়ক চার-লেনে উন্নীতকরণসহ ৮টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট খরচ ধরা হয়েছে ১ হাজার ৮৯৩ কোটি ২২ লাখ টাকা। সম্পূর্ণ সরকারি খরচে এই প্রকল্পগুলোর কাজ শেষ করা হবে।

২৭ জানুয়ারি
* সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের বেসরকারি হাসপাতালে এসে যেন রোগী দেখতে না হয় সেজন্য হাসপাতালগুলোতেই ‘বিশেষ ধরনের সেবা’ চালুর নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কর্মস্থলে চিকিৎসকদের অনুপস্থিতিতে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, সবার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। চিকিৎসকদের যেখানে বদলি করা হবে, তারা যদি সেখানে কাজ না করে তাহলে তাদের ওএসডি করে দিতে হবে। নতুন চিকিৎসক নিয়োগ দিতে হবে। কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকলে তাৎক্ষণিক ওএসডি করতে হবে। আর নার্সরা যদি সেবা দিতে না চায়, তাহলে তাদেরও চাকরি ছেড়ে দিতে বলেন প্রধানমন্ত্রী। সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে গিয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধানমন্ত্রী এমন নির্দেশ দেন।
* আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির কারণে তারা নির্বাচনে হেরেছে। বিপরীতে তারা আওয়ামী লীগকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করেছে। দুপুরে নোয়াখালীর হাতিয়া দ্বীপ সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, সাধারণ মানুষ ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে যে সম্মান দেখিয়েছেন, সেই সম্মানের উপযুক্ত প্রতিদান দেওয়া হবে।
২৯ জানুয়ারি
* ফসলি জমি রক্ষায় আইন করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি হাওড় এলাকার উন্নয়নে উদ্যোগ নেওয়া, সংযোজন শিল্পের সম্প্রসারণ, সব রেললাইন ব্রডগেজে উন্নীতকরণ, যাতায়াত সেবার উন্নয়ন ও যথাযথ বর্জ্য ব্যবস্থাপনার নির্দেশনাও দিয়েছেন তিনি। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী এই নির্দেশনা দেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান।

৩০ জানুয়ারি
* একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে জাতীয় ঐকমত্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। রাষ্ট্রপতি বলেন, জাতীয় সংসদ দেশের জনগণের আশা-আকাক্সক্ষার কেন্দ্রবিন্দু। জাতীয় ঐকমত্য ছাড়া শান্তি ও সমৃদ্ধি স্থায়ী রূপ পেতে পারে না। গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা, আইনের শাসন ও অব্যাহত আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মতো মৌলিক প্রশ্নে সব রাজনৈতিক দল, শ্রেণি-পেশা নির্বিশেষে সবার ঐকমত্য গড়ে তোলার সম্মিলিত উদ্যোগ নেওয়ার জন্য আমি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি। একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে উদ্বোধনী ভাষণে তিনি আরও বলেন, সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ, শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত হয়েছে একাদশ জাতীয় সংসদ। নতুন সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর জাতীয় জীবনে প্রাণ সঞ্চারিত হয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের গৃহীত উদ্যোগ আরও সুসংহত ও গতিশীল হবে বলে আশা প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপ্রধান।
* রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ থেকে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে ভিয়েতনামসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, মিয়ানমারকে অবশ্যই এখান থেকে তাদের নাগরিকদের ফেরত নিতে হবে। তাদের প্রত্যাবর্তনে আমরা বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহায়তা চাই। ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও পররাষ্ট্রবিষয়ক উপমন্ত্রী জুয়্যান কুউক দেজং সকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে এ আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

৩১ জানুয়ারি
* এদেশে সব নাগরিকের সমান অধিকার রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এদেশের প্রত্যেক নাগরিকের সমান অধিকার। নাগরিকদের সব অধিকার নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য। এদিন তার কার্যালয়ে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

Category:

Leave a Reply