পরলোকে ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চু

11-6-2018 6-18-39 PMফারুক শাহ্: ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি … রাজিউন)। গত ১৮ অক্টোবর সকালে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান তিনি।
তার স্বজনরা জানান, সকালে ধানমন্ডির বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হন আইয়ুব বাচ্চু। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।
মৃত্যুর আগে এই রকস্টারের বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। তাকে ভারতীয় উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠ গিটারিস্ট বলা হয়ে থাকে। আইয়ুব বাচ্চু চলে গেলেও তার গান ও গিটারের ছয় তারের সুর বাঙালি শ্রোতাদের হৃদয়ে ধ্বনিত হবে আজীবন। ব্যান্ড দল এলআরবির লিড গিটারিস্ট ও ভোকালিস্ট আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন একাধারে গীতিকার, সুরকার এবং প্লে­ব্যাক শিল্পী।
আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে আহনাফ তাজোয়ার কানাডায় পরিসংখ্যান বিষয়ে পড়াশোনা করছেন ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলম্বিয়ায়। মেয়ে ফাইরুজ সাফরা আইয়ুব থাকেন অস্ট্রেলিয়ায়। দুজনেই দেশে আসেন বাবাকে শেষ দেখা দেখতে।

আইয়ুব বাচ্চুর জানাজা
১৯ অক্টোবর শুক্রবার বাদ জুমা জাতীয় ঈদগাহে কিংবদন্তি ব্যান্ডশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় হাজারও মানুষ অংশ নেন। এদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে তার মরদেহ রাখা হয় সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য। জাতীয় ঈদগাহে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে দ্বিতীয় জানাজা হয় তার গানের স্টুডিও মগবাজারে ‘এবি কিচেন’-এর সামনে। এরপর তৃতীয় জানাজা হয় চ্যানেল আই কার্যালয়ের সামনে। তৃতীয় জানাজা শেষে ব্যান্ড সংগীতের এ কিংবদন্তির মরদেহ স্কয়ার হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়।
কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এই শিল্পীর মরদেহে শ্রদ্ধা জানান সর্বস্তরের মানুষ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপিসহ রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গও তার মরদেহে শ্রদ্ধা জানান। তার মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শহিদ মিনারে আসেন সংগীত ও অভিনয় ভুবনের অনেক তারকা। আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর খবর শুনে স্কয়ার হাসপাতালে ছুটে যান তার শুভানুধ্যায়ী ও ভক্ত-অনুসারীরা।

মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় বাচ্চু
অসংখ্য মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন প্রিয় শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু। ২০ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৫টায় নগরীর চৈতন্যগলি কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। এর আগে জমিয়তুল ফালাহ জামে মসজিদ মাঠে তার জানাজায় হাজারো মানুষ অংশ নেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক
দেশবরেণ্য ব্যান্ড সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এক শোকবার্তায় প্রয়াত শিল্পীর আত্মার শান্তি কামনা করেন। পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। ১৮ অক্টোবর আইয়ুব বাচ্চুর আকস্মিক মৃত্যুর খবর শুনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং সৌদি আরবে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

সংসদে শোক
দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশনে ব্যান্ড সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব করা হয়েছে। ২১ অক্টোবর বিকেলে অধিবেশনের শুরুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সদ্যপ্রয়াত ব্যান্ড সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু ছাড়াও সাবেক সংসদ সদস্য, দেশি-বিদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তির মৃত্যুতে সংসদে শোক প্রস্তাব উত্থাপিত ও গৃহীত হয়।

Category:

Leave a Reply