বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রম উদ্বোধন

Posted on by 0 comment

PMউত্তরণ প্রতিবেদন: গত ১৯ মে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে পরীক্ষামূলক সম্প্রচারের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। দেশের বেশির ভাগ টিভি চ্যানেল সম্প্রচারের জন্য বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সঙ্গে চুক্তি করেছে। টিভি চ্যানেলগুলো ঐদিন থেকেই ফ্রিকোয়েন্সি পাবে। চুক্তিতে সরকারি-বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলো তিন মাস ‘ফ্রি ফ্রিকোয়েন্সি’ পাবে। এরপর ফ্রিকোয়েন্সির ভাড়া নির্ধারণ করা হবে। তবে এই ভাড়া কত হবে তা এখন পর্যন্ত নির্ধারণ করেনি স্যাটেলাইট কোম্পানি। ১৯ মে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।
অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এমপি প্রধান অতিথি, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এমপি বলেন, দেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের বর্ষপূর্তি ও সেবা বিপণন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের অপূর্ণতা ছিল, আমাদের একটি স্যাটেলাইট ছিল না, সেটি আমরা পেরেছি। এখন সাশ্রয়ী মূল্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টিভি চ্যানেলগুলো সম্প্রচার এবং ব্যাংকগুলো ব্যাংকিং সেবা দিতে পারবে।
মোস্তাফা জব্বার বলেন, স্যাটেলাইটের এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি, যেটা আলোচনার বিষয় হতে পারে। আমাদের ছেলেরাই এটি পরিচালনা করছে। বিদেশিদের খুব বেশি দিন প্রয়োজন হবে না। বাংলাদেশের ইঞ্জিনিয়াররাই স্যাটেলাইট পরিচালনা করতে পারবেন। গাজীপুরে প্রায় ১৩ একর জায়গার ওপর ৫ একরজুড়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সেখানে বিদেশি প্রকৌশলীরা কাজ করছেন। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে ৪০ ট্রান্সপন্ডার রয়েছে, যার ২০টি বাংলাদেশ ব্যবহার করবে। বাকি ২০টি বিদেশি বা প্রতিবেশী দেশের কাছে ভাড়া দেওয়া হবে। উৎক্ষেপণের পরবর্তী এক বছর পর্যন্ত এর তদারক করবে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। তবে এখনই বাংলাদেশের ইঞ্জিনিয়ারই এটি পরিচালনায় সক্ষম হচ্ছেন।
১৯ মে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) সঙ্গে যমুনা টিভি, সময় টিভি, দীপ্ত টিভি, বিজয় টিভি, বাংলা টিভি ও মাই টিভি এবং সোনালী ব্যাংক স্যাটেলাইটের সেবা নেওয়ার জন্য সমঝোতা স্মারক সই করেছে। এর আগে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেÑ সময় টিভি, ডিবিসি নিউজ, ইন্ডিপেনডেন্ট টিভি, এনটিভি, একাত্তর টিভি, বিজয় বাংলা ও বৈশাখী টিভি। বাকি টেলিভিশনগুলোও অল্পদিনের মধ্যে চুক্তিবদ্ধ হবে বলে অনুষ্ঠানে বলা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টেলিভিশনগুলোর খরচ কমে যাবে তেমনি দুর্গম এলাকাতে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বাংলাদেশকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

Category:

Leave a Reply