শিরোপার স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ

48আরিফ সোহেলঃ দেশের মাটিতে যুব বিশ্বকাপ শিরোপা শুধু ছুঁয়েই নয়, রেখে দেওয়ার স্বপ্ন দেখছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। যুব বিশ্বকাপের ১১তম আসরে ঠিক সেভাবেই বাংলাদেশ পার করেছে গ্রুপ পর্ব। উদ্বোধনী ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে শুভ যাত্রাপথ খুঁজে নিয়েছিলেন মিরাজরা। গ্রুপ পর্বের পরের দুই ম্যাচে পাত্তাই পায়নি প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড আর নামিবিয়া।
এই আসরে অস্ট্রেলিয়া তাদের যুবদল প্রত্যাহার করে নেওয়ায় কিছুটা শঙ্কা জেগেছিল। কিন্তু সব শঙ্কা সরিয়ে দারুণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ায় বাংলাদেশকে নিয়ে এদেশের ক্রিকেট অনুরাগীদের প্রত্যাশাও অনেক। সেই প্রত্যাশা পূরণে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে মিরাজরা। ইতোমধ্যে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে। সেখানে এই আসরে সাড়া জাগানো নেপালকে পাচ্ছে বাংলাদেশ।
১৯ দিনব্যাপী দীর্ঘ এই টুর্নামেন্টে ৪৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৪টি ভেন্যুতে। আর এই ভেন্যুগুলো হলো ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট এবং কক্সবাজারের শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম। টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ঢাকার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১৪ ফেব্রুয়ারি।
প্রথম পর্বে দুটি রেকর্ড বাংলাদেশের যুবদের আলাদা করে রেখেছে। যুব ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছেন  নাজমুল হাসান শান্ত। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অপরাজিত ১১৩ রান করার পরপরই নয়া রেকর্ড হয়েছে তার। বর্তমান তালিকায় ৫৫টি ম্যাচ খেলে ১ হাজার ৭৬১ রান নিয়ে সবার ওপরে রয়েছেন তিনি। টপকে গিয়েছেন পাকিস্তানের সামি আসলামের রেকর্ডও।
অন্যদিকে অধিনায়ক অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির রেকর্ড অর্জন করেছেন। স্পিনার মিরাজের এখন মোট উইকেট সংখ্যা ৭৪টি। ৮ বছর আগে এই রেকর্ডটি ছিল পাকিস্তানি স্পিনার ইমাদ ওয়াসিমের। ব্যাটিংয়েও সমান প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে মিরাজ করেছেন ১ হাজার ১৩৭ রানও।
পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে বধ করা জাতীয় দলের যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে বাংলাদেশের যুবরা এগিয়ে যাচ্ছেন। স্বপ্ন জয়ের পথে আর মাত্র কয়েকটি ম্যাচ। অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড এবং বোলিংয়েও সর্বোচ্চ উইকেটে নাম ভাস্বর রেখেছেন বাংলাদেশি দুই ক্রিকেটারই। যুব ক্রিকেটের ব্যাটিং-বোলিং রেকর্ডের দুই ক্ষেত্রেই এখন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের নাম লেখা। মিরাজ আরও একটি রেকর্ড পাশে দাঁড়িয়ে। মিরাজ টানা দ্বিতীয়বারের মতো দলকে বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সেই দিক থেকে টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর মধ্যে প্রথম যুব অধিনায়ক হিসেবে।

Category:

Leave a Reply