হাওড়ের অল-ওয়েদার সড়ক উদ্বোধন

Spread the love

উত্তরণ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন শীতে কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস)-এর দ্বিতীয় ধাক্কা আসতে পারে। তা কার্যকরভাবে মোকাবিলা করতে দেশের প্রত্যেক জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নির্মাণ থেকে শুরু করে অক্সিজেনের ব্যবস্থাসহ তাৎক্ষণিক সব চিকিৎসার সেবার ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। গত ৮ অক্টোবর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কিশোরগঞ্জের তিন হাওড় উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রামের মধ্যে নবনির্মিত অল-ওয়েদার সড়কের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
৮৭৪ দশমিক ০৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৯ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এ ব্যয়ে সড়ক নির্মাণ করেছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর।
এ সড়ক প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা মুজিববর্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতির পক্ষ থেকে এটি উপহার হিসেবে দিয়েছি।’ এ-সময় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদকে এমন সড়ক তৈরির উদ্যোগ নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তার (রাষ্ট্রপতির) অনুপ্রেরণা ও উদ্যোগের কারণে রাস্তাটি নির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছি।’ এ অঞ্চলে এ-জাতীয় মহাসড়ক নির্মিত হতে পারে এটা কল্পনার বাইরে ছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির উদ্যোগের কারণে এটি সম্ভব হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ স্থাপন হওয়ায় এই সড়কটি নির্মাণের কারণে এ অঞ্চলের মানুষের দুর্ভোগ দূর হয়ে যাবে।’ এ অঞ্চলের মানুষ এখন নাসিরনগর বা ভৈরব হয়ে দ্রুত ঢাকা যাতায়াত করতে পারবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা এই সড়ক নির্মাণ করে দুর্দান্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছি। পণ্য পরিবহন ও মানুষের অর্থনৈতিক স্বাবলম্বিতা নিশ্চিত করতে বর্তমান সরকার সারাদেশে যোগাযোগ নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে।’
অনুষ্ঠানে মহাসড়কটির ওপর একটি ভিডিও চিত্রও প্রদর্শিত হয়। ভিডিওতে হাওড় ও সড়কের সৌন্দর্যে অভিভূত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইশ! কবে যে সড়কটি দেখতে যাব। আমার মনটা পড়ে থাকল। এ সড়ক দিয়ে গাড়িতে কবে যাব? রাষ্ট্রপতিও চান আমি যেন সরাসরি যাই। আমি যাব। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে এ সড়ক দেখতে যাব।’

Leave a Reply