বঙ্গবন্ধুর ডাকে ছুটে গিয়ে প্রাণ হারান কর্নেল জামিল

তৈমুর ফারুক তুষার : বাবার মৃতদেহ দেখে ডুকরে কেঁদে উঠেছিলেন বড় মেয়ে তাহমিনা এনায়েত তনু। পাহারায় থাকা সেনাসদস্যরা তাতেই হুঙ্কার ছেড়েছিল, ‘কাঁদলেই গুলি করে দেব।’ ভয়ে তনুকে সরিয়ে নিয়ে যান

বাঙালির আপনজন: বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব

অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন: বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। বঙ্গমাতা হিসেবে যিনি আমাদের শ্রদ্ধার আসনে আসিন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী। জীবন মরণের সাথী। জননেত্রী শেখ হাসিনা, শেখ কামাল, শেখ জামাল,

শেখ কামাল সৃজনশীল এক তরুণ নেতা

সাইদ আহমেদ বাবু: কখনো কখনো সময় দারুণ কঠিন। কোনো কোনো রাজনীতিবিদ পরাশক্তি ও শত্রুর কবল থেকে মুক্ত করেন তার সম্প্রদায়ের মানুষকে। বাঙালির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার জীবনের শ্রেষ্ঠ

শোকগাঁথা : ১৫ আগস্ট নারী শহিদ

ড. জেবউননেছা : প্রখ্যাত বাঙালি কবি ও লেখক অন্নদাশঙ্কর রায় বঙ্গবন্ধু স্মরণে লিখেছিলেন, “নরহত্যা মহাপাপ, তার চেয়ে পাপ আরো বড়ো করে যদি তাঁর পুত্রসম বিশ্বাসভাজন জাতির জনক যিনি অতর্কিতে তারই

‘স্মরণের আবরণে আমার বুঁচুসোনা শেখ রাসেল’

গীতালি দাশগুপ্তা “হারিয়ে গেছে অন্ধকারে – পাইনি খুঁজে আর, আজকে তোমার আমার মাঝে সপ্ত পারাবার!” শেখ রাসেল ও আমার সম্পর্কটা ছিল এক বিচিত্র সুরে বাঁধা। সেখানে প্রচলিত সুর-তাল-লয় বা ছন্দের